Untitled Document
শিরোনাম : ||   মাছ উৎপাদনে বিশ্বের ৪র্থ স্থানে বাংলাদেশ- জেলা মৎস্য কর্মকর্তা      ||   জেলার ৫ আ’লীগ নেতাসহ সারাদেশে ২শ’ নেতাকে বহিস্কারের সিদ্ধান্ত      ||   রোহিঙ্গা ক্যাম্পে স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন      ||   রোহিঙ্গা ও স্থানীয় জনগোষ্ঠীরা প্রশিক্ষিত হচ্ছে      ||   মিন্নির ৫ ‍দিনের রিমান্ড মন্জুর      ||   মিয়ানমারের সেনাপ্রধানকে নিষিদ্ধ করলো যুক্তরাষ্ট্র      ||   নুসরাতের দেওয়া দুই পরীক্ষার ফল ‘এ’ গ্রেড      ||   চট্টগ্রাম বোর্ডে কমেছে পাসের হার:বেড়েছে জিপিএ-৫      ||   এইচএসসিতে পাসের হার ৭৩.৯৩ শতাংশ      ||   ৭১ বছর সংসার একই দিনে মৃত্যু      ||   মিয়ানমারের ঊর্ধ্বতন সেনা কর্মকর্তাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা যুক্তরাষ্ট্রের      ||   টেকনাফে পৃথক ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নারী সহ নিহত ৩      ||   ইতিহাসে কী নামে বেঁচে থাকবেন এরশাদ?      ||   শূন্য ঘোষণা এরশাদের সংসদীয় আসন      ||   এইচএসসির ফল প্রকাশ আজ     
২০৩০ সালের পর আমরা ঋণ নেব না- অর্থমন্ত্রী
প্রকাশ: 2019-06-29     ডেস্ক নিউজ অর্থনীতি

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, আগামী ২০৩০ সাল নাগাদ আমরা আর ঋণ নেব না। আমরা ঋণ দেব ইনশআল্লাহ। সারা বিশ্বের মানুষকে ঋণ দেব আমরা। শনিবার জাতীয় সংসদে প্রস্তাবিত ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেটের সমাপনী বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি। অর্থমন্ত্রী বলেন, আমরা বেশি ঋণ করি কি না? আমাদের ঋণের পরিমাণ জিডিপির ৫ শতাংশ। মালয়েশিয়ায় এর চেয়ে বেশি। ঋণের পরিমাণ হিসাব করা হয় জিডিপি দিয়ে। আমরা ঋণ নেই চায়নার কাছ থেকে। চায়নার ঋণের পরিমাণ জিডিপির ২৮৪ শতাংশ। ওরা আমাদের ঋণ দেয়। আমাদের ঋণের পরিমাণ জিডিপির ৩৪ শতাংশ। ফলে আগামীতে আমাদের ঋণ গ্রহণের পরিমান আরো কমে আসবে।

প্রস্তাবিত ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেটের সুফল ২০২৪ সাল পর্যন্ত পাওয়া যাবে দাবি করে অর্থমন্ত্রী বলেন, এ বাজেটটি শুধু একটি বছরের জন্য নয়। এ বাজেটের ফাউন্ডেশন এ বছর। কিন্তু এ বাজেট থেকে ২০৩০ সাল পর্যন্ত অর্জন করতে পারব। সেভাবে আমরা বাজেটটি প্রণয়ন করেছি। আমি বিশ্বাস করি, ২০২৪ সালে আমরা ডাবল ডিজিট গ্রোথে পা রাখব। ২০২৪ সাল থেকে শুরু করে ২০৩০ সাল পর্যন্ত এ বাজেটের ফলাফল পাব।

তিনি বলেন, একটা দেশ এবং জাতির সঙ্গে অনেক মিল আছে। মানুষের জীবনে যেমনিভাবে সম্ভাবনা সৃষ্টি হয়, ঠিক তেমনিভাবে দেশের ক্ষেত্রেও সেটা সম্ভব হয়। দেশের ক্ষেত্রে সম্ভব হয় বলেই আমরা আমাদের এ বাজেটে টাইটেল রেখেছি- ‘সময় এবার আমাদের, সময় এখন বাংলাদেশের’- এটা ইচ্ছাকৃতভাবে লেখা হয়েছে।

অর্থমন্ত্রী বলেন, আমরা কী দেখতে পাই? আমরা যদি মালয়েশিয়ার দিকে তাকাই? ৩০ বছরের মধ্যে মালয়েশিয়া চলে গেছে তাদের কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে, কাঙ্ক্ষিত জায়গায়। চায়নার অবস্থা কি ছিল? চায়না সবচেয়ে দরিদ্র দেশ ছিল। চায়নায় কোনো খাবার ছিল না। চায়না আজকে পৃথিবীর এক নম্বর দেশ।

তিনি বলেন, যদি চায়না পারে, মালয়েশিয়া পারে, সাউথ কোরিয়া পারে তাহলে বাংলাদেশ অবশ্যই পারবে। আমরা গত ১০ বছরে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে নিরলস পরিশ্রম করে সবাই মিলে বাংলাদেশকে যে জায়গায় নিয়ে এসেছি। ট্রেন একবার যখন ট্র্যাকের উপর উঠে যায় তখন আর ট্রেন পেছনের দিকে যায় না। কোনো জাতি নেই আমাদের এখান থেকে গতিচ্যুত করতে পারবে। আমরা এগোবই, এগোবই ইনশাআল্লাহ।

অর্থনীতি
হঠাৎ বেড়েছে পেঁয়াজের দাম: কারণ জানেন না কেউ

এবারের কোরবানিতে দেশীয় পশুর উৎপাদন বেড়েছে

কক্সবাজারে ১০দিন ব্যাপী তৃণমূল নারী উদ্যোক্তা মেলা শুরু

কোরবানির আগে পেঁয়াজের দাম বাড়ার আশংকা

২০৩০ সালের পর আমরা ঋণ নেব না- অর্থমন্ত্রী

ব্যাংক কার্ডের আমদানি শুল্ক ৪-৬ শতাংশ বাড়বে

দিনে মোবাইল ব্যাংকিংয়ে ১১শ’ কোটি টাকার লেনদেন

২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেটে মন্ত্রিপরিষদের অনুমোদন

বাজেটে যেসব ক্ষেত্রে দুঃসংবাদ আসতে পারে

চাল আমদানিতে শুল্ক কর বৃদ্ধি

মাছ উৎপাদনে বিশ্বের ৪র্থ স্থানে বাংলাদেশ- জেলা মৎস্য কর্মকর্তা
জেলার ৫ আ’লীগ নেতাসহ সারাদেশে ২শ’ নেতাকে বহিস্কারের সিদ্ধান্ত
রোহিঙ্গা ক্যাম্পে স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন
রোহিঙ্গা ও স্থানীয় জনগোষ্ঠীরা প্রশিক্ষিত হচ্ছে
মিন্নির ৫ ‍দিনের রিমান্ড মন্জুর
মিয়ানমারের সেনাপ্রধানকে নিষিদ্ধ করলো যুক্তরাষ্ট্র
নুসরাতের দেওয়া দুই পরীক্ষার ফল ‘এ’ গ্রেড
চট্টগ্রাম বোর্ডে কমেছে পাসের হার:বেড়েছে জিপিএ-৫
এইচএসসিতে পাসের হার ৭৩.৯৩ শতাংশ
৭১ বছর সংসার একই দিনে মৃত্যু
মিয়ানমারের ঊর্ধ্বতন সেনা কর্মকর্তাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা যুক্তরাষ্ট্রের
টেকনাফে পৃথক ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নারী সহ নিহত ৩
ইতিহাসে কী নামে বেঁচে থাকবেন এরশাদ?
শূন্য ঘোষণা এরশাদের সংসদীয় আসন
এইচএসসির ফল প্রকাশ আজ
পাসপোর্ট অফিসে ভূঁয়া বাবাসহ রোহিঙ্গা যুবতী আটক
 

উপদেষ্টা সম্পাদক: আবু তাহের
সম্পাদক: বিশ্বজিত সেন
প্রকাশক: আবদুল আজিজ

 

কক্সবাজার প্রেসক্লাব ভবন (২য় তলা),
শহীন সরণি (সার্কিট হাউস রোড), কক্সবাজার।
ফোন:
০১৮১৮-৭৬৬৮৫৫, ০১৫৫৮-৫৭৮৫২৩।


ইমেইল :

news.coxsbazarvoice@gmail.com
About Coxsbazar Voice
Advertisement
Contact
Web Mail
Privacy Policy
Terms & Conditions
কক্সবাজার ভয়েস পত্রিকার কোন সংবাদ,লেখা,ছবি বা কোন তথ্য পূর্ব অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
All rights reserved © 2019 COXSBAZAR VOICE Developed by : JM IT SOLUTION