Untitled Document
শিরোনাম : ||   ঐক্যফ্রন্টে যেতে অনীহা বাম জোটের      ||   ধরা পড়ছে ইলিশ, জেলেদের মুখে হাসি      ||   অর্ধশত কোটি টাকা ব্যয়ের পরও বাড়ছে ডেঙ্গু      ||   পিএসজি নেইমারকে ‘ছেড়ে দিতে পারেন’      ||   এজলাসের খাঁচায় অজ্ঞান হয়ে ২০ মিনিট ছিলেন মুরসি!      ||   কারাগারে ‘বিশেষ সুবিধায়’ বদির চার ভাই      ||   মিয়ানমারে ব্যর্থতার দায়ে জাতিসংঘ মহাসচিবের পদত্যাগ দাবি      ||   দৈনিক দৈনন্দিন সম্পাদকের জন্মদিন পালন      ||   ঢাকায় পেট্রোল পাম্পে আগুন      ||    মিয়ানমারে ব্যর্থতার দায় স্বীকার জাতিসংঘের      ||   খালেদার জামিন প্রমাণ করে বিচার বিভাগ স্বাধীন      ||   সব বিমানবন্দরে ডগ স্কোয়াড গঠনের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর      ||   রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অপচিকিৎসায় অর্ধশতাধিক রোহিঙ্গা ডাক্তার!      ||   ফার্মেসির মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ একমাসের মধ্যে সরানোর নির্দেশ হাইকোর্টের      ||   ফোন করে মাশরাফিদের প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন     
সিকিম : সাদা পাহাড় যেন নীল আকাশ ছুঁয়ে আছে
প্রকাশ: 2019-05-23     নিউজ ডেস্ক পর্যটন

ভারত সীমান্তে যখন আমাদের পাঁচজনের পাসপোর্ট চেক করছিলেন,পুরুষ অফিসার চোখ তুলে তাকিয়ে জিজ্ঞেস জিজ্ঞেস করলেন, সব মহিলা?স্মৃতি ভাবী বেশ পার্ট দেখিয়ে বললেন, হ্যাঁ আমরা চাইলেই সব পারি।অফিসার মিষ্টি হেসে বললেন, ঠিক আছে তবে আমাদেরকে একদম সাইট করে দিবেননা যেন।তবে শেষ পর্যন্ত গ্রুপটা আর শুধু মহিলাদের থাকলো না।শিলিগুড়িতে আমাদের সাথে যুক্ত হলো তিনজনের আরেকটা গ্রুপ।ওখানে দুইজন ছেলে।একজন মামুন।মালেশিয়ার একটা ভার্সিটিতে ম্যাকানিকাল ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ছে,আরেকজন অনিন্দ্য।সে এ লেভেল দিবে বা দিয়ে ফেলেছে।সেলিব্রিটি রীতিমতো। অনেক ভালো ভালো মুভিতে,নাটকে মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করেছে সে।একটা অস্কারের জন্য মনোনীত হয়েছিলো। অন্যজন লাইলা।অনিন্দের বোন।মালেশিয়াতে কম্পিউটার সাইন্স নিয়ে পড়ছে।এতো কিউট কিউট তিনজন সাথী পেয়ে আমাদের জার্নিটা আরো বেশী প্রান পেলো।মহিলাদের গ্রুপে ঐ ছেলে দুটোর প্রতি অনেক নির্ভরশীল হয়ে গেলাম দ্রুতই।


তিনটা মেয়ে (দ্যুতি,হৃদী,পুষ্প) ঠিক করলো তাদের মাকে নিয়ে ঘুরতে যাবে সুন্দর কোন জায়গায়। ইউটিউব, গুগল দেখে ঠিক করলো সিকিম দেখার। পূর্ব হিমালয় অঞ্চলের একটি অংশ সিকিম। সিকিমে উপস্থিত কাঞ্চনজঙ্ঘা পৃথিবীর তৃতীয় সর্বোচ্চ পর্বত শিখর।পাসপোর্টের কোন একটা সমস্যার কারনে পুস্পের যাওয়া হলোনা মাকে নিয়ে।

আমাদের যাত্রা শুরু হলো ২১ এপ্রিল। সিকিম দেখার পারফেক্ট টাইম মার্চ এপ্রিল। শিলিগুড়ি থেকে সিকিমের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিলাম ২২ তারিখ দুপুরে।ঝিকঝাক প্যাটার্নে নির্মিত রাস্তা ক্রমশ উপরের দিকে উঠছে আর সবার কন্ঠে একটাই শব্দ শুনতে পাচ্ছিলাম ওয়াও..। যাওয়ার পথে ছোট বড় অসংখ্য ঝর্ণা। নামলাম কয়েকটাতে, আশ্চর্যরকম স্বচ্ছ পানি। সুন্দর সব জায়গা দেখতে দেখতে রাজধানী গ্যাংটকে যখন পৌঁছালাম তখন সন্ধ্যা পেরিয়ে গেছে। পাহাড়ের ধাপে ধাপে তৈরি করা বাড়ীর লাইট দেখে মনে হচ্ছিলো যেন আকাশে অসংখ্য তারার মেলা।

পরিচ্ছন্ন শহর। খোলা রাস্তায় প্লাস্টিক, ঠোংগা, সিগারেট, থুথু ফেলা দণ্ডনীয় অপরাধ। মদ খাওয়া যাবে তবে বোতল ফেলা যাবেনা।অসম্ভব ভদ্র মনে হলো পাহাড়িদের।মাত্র ১৫০০ রুপিতে খুব ভালো মানের হোটেল পাওয়া গেল।ওয়াইফাই, গ্রিজার,বাথটাব, পরিস্কার বাথরুম। জানালার কাছে বসে রাতের পাহাড় দেখে কাটিয়ে দেওয়া যায় পুরোটা সময়।

পরদিন ভোরেই বের হয়ে গেলাম নর্থ সিকিমের উদ্দেশ্যে। ইউংথাং ভেলী, জিরো পয়েন্ট গন্তব্য। বাংলাদেশীদের জন্য জিরো পয়েন্টে যাওয়ার পারমিশন পাওয়া যায়না কারণ কোন এক দেশপ্রেমিক নাকি সীমান্তে গিয়ে বাংলাদেশের পতাকা উড়িয়ে দিয়ে এসেছিলো। আমাদের ভাগ্য ভালো ছিলো, আমাদের গাড়ির ড্রাইভার শ্রমিক নেতা ওখানকার। সবাই তাকে সমীহ করে দেখলাম। সে অনেক চেষ্টা করে আমাদেরকে পারমিশন নিয়ে দেয়।যদিও সেজন্য তাকে এক্সট্রা ৩০০০ রুপি দিতে হয়েছে। কিন্তু জিরো পয়েন্টে যে রুপ আমরা দেখলাম সেটা অমূল্য। বরফে ঢাকা সাদা পাহাড়গুলো নীল আকাশ ছুঁয়ে আছে। আল্লাহর এক অপূর্ব সৃস্টি। এতো সুন্দর!!  লিখে বা বলে এর সৌন্দর্য বর্ণনা করা অসম্ভব।জিরো পয়েন্ট থেকে লাচুং ফেরার পথে নামলাম ইউংথাং ভেলীতে।তার আরেক রুপ।উঁচু পাহাড়। বরফে রোদ পড়ে চিকচিক করছে।তারই কুল ঘেঁষে নীল পানির লেক।শুধু চোখ জুড়িয়ে মন ভরে দেখলাম। আর আল্লাহর কাছে শুকরিয়া জানালাম।

পর্যটন
বিমানের জনসংযোগ বিভাগের দায়িত্ব পেলেন তাহেরা

সিকিম : সাদা পাহাড় যেন নীল আকাশ ছুঁয়ে আছে

ঐক্যফ্রন্টে যেতে অনীহা বাম জোটের
ধরা পড়ছে ইলিশ, জেলেদের মুখে হাসি
অর্ধশত কোটি টাকা ব্যয়ের পরও বাড়ছে ডেঙ্গু
পিএসজি নেইমারকে ‘ছেড়ে দিতে পারেন’
এজলাসের খাঁচায় অজ্ঞান হয়ে ২০ মিনিট ছিলেন মুরসি!
কারাগারে ‘বিশেষ সুবিধায়’ বদির চার ভাই
মিয়ানমারে ব্যর্থতার দায়ে জাতিসংঘ মহাসচিবের পদত্যাগ দাবি
দৈনিক দৈনন্দিন সম্পাদকের জন্মদিন পালন
ঢাকায় পেট্রোল পাম্পে আগুন
মিয়ানমারে ব্যর্থতার দায় স্বীকার জাতিসংঘের
খালেদার জামিন প্রমাণ করে বিচার বিভাগ স্বাধীন
সব বিমানবন্দরে ডগ স্কোয়াড গঠনের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর
রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অপচিকিৎসায় অর্ধশতাধিক রোহিঙ্গা ডাক্তার!
ফার্মেসির মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ একমাসের মধ্যে সরানোর নির্দেশ হাইকোর্টের
ফোন করে মাশরাফিদের প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন
বাংলাদেশ ও সাকিবে মুগ্ধ সৌরভ-লক্ষণ
 

উপদেষ্টা সম্পাদক: আবু তাহের
সম্পাদক: বিশ্বজিত সেন
প্রকাশক: আবদুল আজিজ

 

কক্সবাজার প্রেসক্লাব ভবন (২য় তলা),
শহীন সরণি (সার্কিট হাউস রোড), কক্সবাজার।
ফোন:
০১৮১৮-৭৬৬৮৫৫, ০১৫৫৮-৫৭৮৫২৩।


ইমেইল :

news.coxsbazarvoice@gmail.com
About Coxsbazar Voice
Advertisement
Contact
Web Mail
Privacy Policy
Terms & Conditions
কক্সবাজার ভয়েস পত্রিকার কোন সংবাদ,লেখা,ছবি বা কোন তথ্য পূর্ব অনুমতি ছাড়া কপি করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
All rights reserved © 2019 COXSBAZAR VOICE Developed by : JM IT SOLUTION