রবিবার, ২১ Jul ২০২৪, ০১:৫১ অপরাহ্ন

দৃষ্টি দিন:
সম্মানিত পাঠক, আপনাদের স্বাগত জানাচ্ছি। প্রতিমুহূর্তের সংবাদ জানতে ভিজিট করুন -www.coxsbazarvoice.com, আর নতুন নতুন ভিডিও পেতে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল Cox's Bazar Voice. ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে শেয়ার করুন এবং কমেন্ট করুন। ধন্যবাদ।

ঈদে পর্যটক বরণে প্রস্তুত: হোটেল-মোটেলে ৪০ শতাংশ ছাড়

সাজন বড়ুয়া সাজু:
পবিত্র ঈদুল আযহার টানা সরকারি ছুটিতে পর্যটক বরণে প্রস্তুতি নিয়েছেন হোটেল-মোটেল মালিক সমিতি ও পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা। একই সাথে পর্যটকদের সার্বিক নিরাপত্তা দিতে সকল ধরণের প্রস্তুতি নিয়েছে ট্যুরিস্ট পুলিশ ও জেলা প্রশাসন। এরই মধ্যে বিশেষ ছাড়ের ঘোষণা দিয়েছে কিছু কিছু হোটেল-মোটেল-গেস্ট হাউজগুলো। শুরু হয়েছে অগ্রিম বুকিংও।

বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সৈকত কক্সবাজার। বালুকাময় এই সমুদ্র সৈকত দেখতে প্রতিদিন লাখ লাখ পর্যটক ভ্রমনে আসে কক্সবাজারে। কোন বিশেষ দিনে পর্যটকদের সংখ্যা বেড়ে হয়ে যায় দ্বিগুনেরও বেশী। তাই, সামনে ঈদুল আযহার বিশেষ সরকারি ছুটিতে কয়েক লাখ পর্যটক কক্সবাজার ভ্রমনে আসতে পারে বলে মনে করছেন ব্যবসায়ীরা। তাই, পর্যটকদের সুবিধার্থে ৪০ শতাংশ ছাড়ের পাশাপাশি সকল ধরণের প্রস্তুতি নিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।

কক্সবাজারের পর্যটন উদ্যোক্ত মো: আব্দুর রহমান বলেন, কক্সবাজারে প্রতি মাসে পর্যটক থাকে তবে বিশেষ বিশেষ দিনে পর্যটকের আনাগোনা বেড়ে যায়। যাট ফলে পর্যটকদের আনন্দের মাত্রা বাড়িয়ে দিতে এবং আরামদায়ক ভ্রমনের লক্ষ্যে প্রায় ৪০% পর্যন্ত ছাড় দেয়া হয়েছে এই ঈদুল আজহা কে কেন্দ্র করে।

কক্সবাজার কলাতলী মেরিন ড্রাইভ হোটেল রিসোর্ট মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো: মোখিম খান বলেন, ঈদকে কেন্দ্র করে সেজেছে হোটেল-মোটেল গুলো। এছাড়া সর্বত্রে পর্যটকদের নিরাপদ ভ্রমণে তারা সবসময় সজাগ রয়েছে।

কক্সবাজার আবাসিক হোটেল মোটেল গেস্ট হাউস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক সেলিম নেওয়াজ বলেন, গত রোজার ঈদে প্রথম ১০দিন ভালো ব্যবসা হয়েছিল। কিন্তু, এরপর থেকে পর্যটক কমেছে। এই অবস্থায় আমাদের অনেক বড় লোকসান গুনতে হয়েছে। কোরবানির ঈদের ছুটিতে পর্যটক আসলে এবং আমরা লোকসান পুষিয়ে নিতে পারব, এমনটাই আশা করছি।

কক্সবাজার হোটেল-মোটেল ও রেস্ট হাউস মালিক সমিতির সভাপতি আবুল কাসেম সিকদার বলেন, ‘অন্যান্য বছরের তুলনায় এবছর স্কুল-কলেজে পরীক্ষা, তাপমাত্রা বৃদ্ধি, উপজেলা নির্বাচন ও ঘূর্ণিঝড় রেমালের কারণে পর্যটকের পরিমাণ এবার কম। তিনিও শেষ মুহূর্তে পর্যটক সমাগম ঘটার সম্ভাবনা রয়েছে।

ঈদে নিরাপত্তা জোরদারের বিষয়ে টুরিস্ট পুলিশ কক্সবাজার জোনের অতিরিক্ত ডিআইজি আপেল মাহমুদ বলেন, আসন্ন ঈদে আগত পর্যটকদের নিরাপত্তার স্বার্থে পর্যটন এরিয়ায় নিরাপত্তা জোরদার করা হবে। এছাড়া বিশেষ বিশেষ টিম মাঠে নামানো হবে। বিচ নিরাপত্তাসহ সকল অপরাধীদের বিরুদ্ধে শক্ত অবস্থানে থাকবে এই টিম। পর্যটনের স্বার্থে টুরিস্ট পুলিশের অবস্থান সবসময় জিরো টলারেন্স থাকবে।

শুধু কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত নয়, জেলার অন্যান্য পর্যটন স্পটগুলোতেও ভ্রমনে আসা পর্যটকদের অবাধে ঘুরে বেড়ানোর প্রত্যাশা সকলের।

ভয়েস/আআ

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2023
Developed by : JM IT SOLUTION